আটা ক্রেতাদের জোরপূর্বক আতপ চাল দেয়ার অভিযোগ

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে খোলাবাজারে আতপ চালের বিক্রি বাড়াতে ডিলাররা আটা ক্রেতাদের জোরপূর্বক আতপ চাল নিতে বাধ্য করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ক্রেতারা আটা চাইলে সঙ্গে আতপ চালও দিয়ে দেয়া হচ্ছে এবং তা নিতেও বাধ্য করা হচ্ছে সাধারণ ক্রেতাদের। গতকাল মঙ্গলবার ও বুধবার ‘ট্রাক সেল’ কর্মীদের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ করেছেন ক্রেতারা। ক্রেতাদের অভিযোগ, ‘আতপ চাল না কিনলে আটা মিলছে না।’ এদিকে, ক্রেতাদের করা এ অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে ডিলারদের পক্ষ থেকে।
বুধবার দুপুরে রাজধানীর বাংলামোটর-কাঁঠালবগান ‘ট্রাক সেলে’র সামনে একব্যক্তিকে চাল কিংবা আটা কোনোটাই না কিনে দাড়িয়ে থাকতে দেখে কেন দাড়িয়ে আছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘চাল না নিলে আটা দেওয়া হচ্ছে না।’ এছাড়াও কাঁঠালবাগান এলাকার অনেকেই জানান আটা চাইলে তাদেরকে প্রথমে আতপ চাল নিতে বলা হয়েছে।
এর আগে, গতকাল মঙ্গলবার পান্থপথে খোলাবাজারে আটা কিনতে আসা এক নারী ক্রেতাও এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, আমি না চাওয়াতেও তারা (ট্রাক সেলের কর্মীরা) শেষ পর্যন্ত জোর পূর্বক আমাকে ৩ কেজি আতপ চাল কিনতে বাধ্য করে।
এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বাংলামোটর-কাঁঠালবাগানের ট্রাকসেল কর্মী সাইদ বিন কাওসার বলেন, ‘বিষয়টি ঠিক নয়। তবে কেউ সামান্য চাল নিয়ে ব্যাগ চাইলে তাকে পাঁচ কেজি নেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। আটা চাইলে জোর করে কাউকে আতপ চাল দেওয়া হয়নি।’
আতপ চাল নেওয়ার জন্য ক্রেতাদের অনুরোধ করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘আতপ চাল হলেও চাল ভালো বলেই অনুরোধ করছি। কেউ নিলে নিলো, না নিলে না নিলো।’
অভিযোগের বিষয়টি নিয়ে ডিজি ফুড অফিসে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। এ বিষয়টি তিনিই জানাতে পারবেন বলেও জানান মন্ত্রী।
তবে খাদ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক (ফুড) মো. বদরুল হাসানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় সরকার গত রোববার (১৭ সেপ্টেম্বর) থেকে খোলাবাজারে আতপ চাল প্রতিকেজি ৩০ টাকা ও আটা প্রতিকেজি ১৭ টাকা দরে বিক্রি শুরু করে। ঢাকায় ১২০টিসহ সারাদেশে ৬২৭টি ট্রাকে করে এমএসের চাল বিক্রি শুরু করা হয়েছে।

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *