আলোচনা কাজে আসেনি !! মিয়ানমারের সঙ্গে চালের আলোচনা ভেস্তে গেছে, চুক্তি হয়নি

মিয়ানমার থেকে খালি হাতেই ফিরে এসেছেন খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম। শনিবার রাতে তিনি মিয়ানমার থেকে দেশে ফেরেন। দেশে চালের মজুদ বাড়াতে থাইল্যান্ড, ভিয়েতনামের পর মিয়ানমার থেকে চাল আমদানির চুক্তি করতে পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদল নিয়ে মিয়ানমার সফরে গিয়েছিলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। তবে মিয়ানমার সরকার চাল রফতানির বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে কোনও চুক্তি স্বাক্ষর করেনি।খাদ্যমন্ত্রীর মিয়ানমার সফরের উদ্দেশ্য ছিলো সরকার টু সরকার (জিটুজি) পদ্ধতিতে বছরে ১০ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির জন্য মিয়ানমার সরকারের সঙ্গে এমওইউ (সমঝোতা চুক্তি) স্বাক্ষর করা। কিন্তু বাংলাদেশের এমন প্রস্তাবে রাজি হয়নি মিয়ানমার।
ঢাকায় মিয়ানমারের প্রতিনিধি দল, চাল আমদানি নিয়ে চলছে দর কষাকষি এমন গুঞ্জন শুনা গেলেও কোন কাজে আসেনাই এই আলোচনা

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *